লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা অবহেলায় রোগীর মৃত্যু

0
224

আনিস কবির, লক্ষ্মীপুর, ৬ ফেব্রুয়ারি:
লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে বাদশা মিয়া (৫৫) নামের এক রোগী প্রয়োজনীয় চিকিৎসার অভাবে মারা গেছে বলে অভিযোগ করেছেন মৃতের স্বজনরা। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে তিনি মারা যান।
এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেন স্বজন ও স্থানীয় এলাকাবাসী। নিহতের মরদেহ হাসপাতালে রাখা হয়েছে। নিহত বাদশা মিয়া রায়পুর উপজেলার চরবংশী গ্রামের ওয়াহেদ আলীর ছেলে।
নিহতের স্ত্রী শাহানারা ও ছেলে শাহজাহান জানান, বুধবার দিবাগত রাত ১ টার দিকে হার্টের ব্যাথা নিয়ে বাদশাহ মিয়াকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করান তারা।
কিন্তু কোন চিকিৎসক ও নার্স তাদের রোগীর যথাযথ চিকিৎসা সেবায় এগিয়ে আসেনি। সকালে রোগী টয়লেটে যাওয়ার পর সেখানে অজ্ঞান হয়ে পড়েন।
কিছুক্ষন পর চিকিৎসক এসে তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এসময় স্বজনদের চিৎকার ও ক্ষোভের মুখে পড়েন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। স্থানীয় এলাকাবাসীও তাদের বিক্ষোভের সঙ্গে একাত্মতা পোষন করেন।
স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ, হসপিটালের চিকিৎসকরা প্রাইভেট ক্লিনিকে রোগী দেখেন। অধিকাংশ সময় হসপিটালে নার্স ও চিকিৎসকদের পাওয়া যায় না।
এ ব্যাপারে সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আনোয়ার হোসেন জানান, হার্টের সমস্যা নিয়ে রোগী ভর্তির পর চিকিৎসা চলছিল। হঠাৎ রোগী মৃত্যুর বিষয়টি অনাকাঙ্খিত। তবুও কোন অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।