রামগঞ্জে চাঁদাদাবীতে শিশু অপহরনের চেষ্টা: গৃহবধূকে কুপিয়ে আহত

0
742

আমার লক্ষ্মীপুর ডট কম, লক্ষ্মীপুর, ৬ অক্টোবর: লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার ৯ নম্বর ভোলাকোট ইউনিয়নের ভোলাকোট গ্রামে শনিবার সন্ধ্যায় সাবেক যুবলীগ নেতার দাবীকৃত চাঁদা না পেয়ে দুই বছরের শিশু মনিকাকে অপহরন করতে গিয়ে ব্যর্থ হওয়ায় শিশুটিকে ছুঁড়ে ফেলে প্রবাসী আলাউদ্দিনের স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৩২) কে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। স্থানীয় লোকজন মারাত্মক আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার সন্ধায়।
হসপিটালে আহত ফাতেমা বেগমের নিকটাত্মীয়রা জানান, উপজেলার ভোলাকোট গ্রামের ফরাজি বাড়ির সদ্য প্রবাস ফেরত মোতাহের হোসেন বাড়িতে পাকা বসতঘর নির্মান করার সময় ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি মোঃ জুয়েলের নেতৃত্বে কয়েকজন সন্ত্রাসী ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে।
শনিবার বিকেলে প্রবাসী বাড়িতে রয়েছে এমন সংবাদ পেয়ে জুয়েল ও তার লোকজন বাড়িতে উপস্থিত হয়ে প্রবাসী মোতাহের হোসেনকে না পেয়ে তার আরেক প্রবাসী ভাই আলাউদ্দিনের দুই বছরের শিশু মনিকাকে অপহরনের উদ্যেশ্যে তুলে নিয়ে যাওয়ার সময় শিশুর মা ফাতেমা বেগম চিৎকার দেয়।
এ সময় জুয়েল শিশুটিকে ছুঁড়ে ফেলে দিয়ে প্রবাসী আলাউদ্দিনের স্ত্রী ও শিশুর মা ফাতেমাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে।
এ ব্যপারে সাবেক যুবলীগ নেতা ও ঘটনার সাথে অভিযুক্ত মোঃ জুয়েল মোবাইলে জানান, তাদের সাথে আমার পারিবারিক বিরোধ রয়েছে, এ কথা বলে তিনি মোবাইল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।
প্রবাসী মোতাহের হোসেন বলেন, সন্ত্রাসীদের হামলায় ফাতেমা বেগমের আত্মচিৎকারে গ্রামের নাহিদ, মিরাজ, রিপন ও রহমত উল্যাহ দৌড়ে আসলে জুয়েল ও তার লোকজন হকস্টিক ও লোহার রড় দিয়ে তাদেরকেও পিটিয়ে আহত করে। রামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন, সৃষ্ট ঘটনায় জুয়েলকে প্রধান আসামী করে এজাহার দায়ের করা হয়েছে। জুয়েল ও তার অনুসারীদের গ্রেফতারে পুলিশ আন্তরিক।

নিউজ: এডমিন।