লক্ষ্মীপুরে ভূয়া চিকিৎসকের কারাদণ্ড

0
464

আমার লক্ষ্মীপুর ডট কম, লক্ষ্মীপুর, রাকিব হোসেন আপ্র, ১৪ জুলাই:
লক্ষ্মীপুরে অবৈধভাবে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণার করার দায়ে এম এ নাঈম (৪০) নামে এক ভূয়া চিকিৎসককে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
আজ রবিবার সন্ধায় সদর উপজেলার জকসিন পূর্ব বাজারের মেসার্স কাজী ফার্মাতে রোগী দেখার সময় তাকে আটক করে র‌্যাব।
দ-প্রাপ্ত এম এ নাঈম সদর উপজেলার লাহারকান্দি ইউনিয়নের আটিয়াতলী গ্রামের রসুল আমিনের ছেলে।
জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. খবিরুল আহসান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এম এ নাঈম দীর্ঘদিন যাবত অবৈধভাবে ডাক্তার পরিচয় ব্যবহার করে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছেন বলে খবর পাওয়া যায়। তিনি এম.বি.বি.এস কিংবা বিডিএস চিকিৎসক না হওয়া স্বত্ত্বেও ভিজিটিং কার্ডে অতিরিক্ত পদ-পদবি ও ভুয়া নিবন্ধন ব্যবহার করে মানুষের কাছে অতিরিক্ত যোগ্যতা প্রকাশ করেছেন। একই সঙ্গে রোগীদের প্রেসক্রিপশনে এন্টিবায়োটিক ঔষধের নাম লিখছেন, ঘটনাস্থলে গিয়েও এমন অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়।
বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিল আইন ২০১০ এর ২৮ ও ২৯ এর (১) ধারায় এম এ নাঈমকে অভিযুক্ত করে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয় বলে জানান এই কর্মকর্তা।
এ অভিযানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, র‌্যাব-১১ লক্ষ্মীপুর ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক নরেশ চাকমা, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. আরিফুর রহমান, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রাজিব হোসেন প্রমুখ।

নিউজ: রাকিব হোসেন আপ্র।