লক্ষ্মীপুরে নৌ শ্রমিকদের কর্মবিরতিতে দূর্ভোগে যাত্রীরা

0
130

আমার লক্ষ্মীপুর ডট কম, লক্ষ্মীপুর, ফরহাদ হোসেন, ১৬ এপ্রিল: নৌ-পথে চাঁদাবাজি, শ্রমিক নির্যাতন বন্ধ ও নৌ শ্রমিকদের বেতন ভাতা পুনঃনির্ধারণসহ ১১ দফা দাবিতে কর্মবিরতি পালন করেছে নৌ শ্রমিকরা। মঙ্গলবার সকাল থেকে এ কর্মসূচিটি পালন করছে লক্ষ্মীপুরের নৌ শ্রমিকরা।
পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী কর্মবিতির কারনে ভোর থেকে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলায় মুজচৌধুরীর হাট ঘাট থেকে অভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লার কোন নৌযান ছেড়ে যায়নি। এতে দূর্ভোগে পড়েছেন এ নৌ-রুটে চলাচল করা দক্ষিণাঞ্চলের ২১টি জেলার সাধারণ মানুষ।
আন্দোলনরত নৌ শ্রমিকরা জানান, নৌযান শ্রমিকদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত, সমুদ্র ভাতা ও রাত্রীকালীন ভাতা পুনঃনির্ধারনসহ ১১ দফা দাবিতে ২০১৮ সালে ২৭ সেপ্টম্বর একই ভাবে কর্মবিরতি দেয়া হয়েছিল।
এরপর সরকার ও মালিকপক্ষ কয়েকটি সভা করে দাবী মেনে নেওয়ার আশ^াস দেওয়ায় কর্মবিরতি স্থগিত করা হয়েছে। কিন্তু দীর্ঘদিন পেরিয়ে গেলেও দাবী আদায় না হওয়ার আবারো কর্মবিরতির ঘোষণা দেয় নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন। যতক্ষণ পর্যন্ত তাদরে দাবী মেনে নেয়া না হবে, ততদিন পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষনা দেন শ্রমিকরা।
অপরদিকে আবদুস সালাম, কামাল হোসেনসহ কয়েকজন যাত্রী জানায়, হঠাৎ ধর্মঘটে বেকায়দা পড়েছেন তারা। লঞ্চ না ছাড়ায় পরিবার পরিজন নিয়ে চরম বিপাকে পড়তে হয়েছে। পাশাপাশি ঘাটে কোন খাবার হোটেল ও  টয়লেট না থাকায় আরো  বড় ধরনের দূর্ভোগের শিকার  হতে হচ্ছে তাদের। দ্রুত লঞ্চ চলাচল শুরু করার দাবি করেন যাত্রীরা।
এ ব্যপারে মজু চৌধুরী লঞ্চ ঘাঁটের দায়িত্বরত কর্মকর্তা আই ডব্লিও টি’র পরিদর্শক মোঃ শরিফুল ইসলাম জানান, সারাদেশেই আন্দোলন হচ্ছে। সকাল থেকে শ্রমিকরা কাজ না করলেও সরকারী তিনটি সী-ট্রাক নির্ধারিত সময়ে ছেড়ে গেছে ভোলার উদ্দেশ্যে।

নিউজ: ফরহাদ হোসেন।